Home » রান্নার কৌশল

কুকিজ বেকিং এর কিছু টিপস

Updated February 7, 2021

আমরা যারা বেকিং করে থাকি অথবা বেকিং শুরু করতে যাচ্ছি তাদের অনেকেরই একটি ইচ্ছা থাকে - নিজ হাতে বিভিন্ন ধরনের কুকিজ বেক করতে পারা এবং কুকিজ মেকিং এর ক্ষেত্রে একটিবারও পারদর্শিতা লাভ করা। 

তাহলে দেখে নেওয়া যাক কুকিজ বেকিং এর ব্যাপারে কিছু টিপস যেগুলো আমাদের সবসময় মনে রাখা দরকার এবং এই টিপসগুলো অনুসরণ করলে আপনি সহজেই কুকিজ বেকিং এ পারদর্শিতা অর্জন করতে পারবেন।

কুকিজ বেকিং এর সময় চিনি নিয়ে আমরা অনেকেই সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগতে পারি। এ ক্ষেত্রে যে বিষয়টি আপনি মনে রাখতে পারেন তা হচ্ছে আপনি যদি চান আপনার কুকিজ গুলো একটু কেক টাইপের টেক্সচার পাক তাহলে আপনাকে আপনি অবশ্যই ব্রাউন সুগার ইউজ করতে হবে। আর আপনি যদি তুলনামূলক মচমচে কুকিজ বেক করতে চান তাহলে আপনি হোয়াইট সুগার ব্যবহার করতে পারবেন। এতে বিদ্যমান মোলাসেস উপাদানটির জন্য এদের দ্বারা তৈরি কুকিজ গুলো একটু সফট হয়ে থাকে এবং টেক্সচার অনুযায়ী কুকিজ গুলো একটু কেক ধরনের হয়ে থাকে বা নরম হয়ে থাকে।

ডিম 

কুকিজ তৈরীর ক্ষেত্রে ডিম একটি মৌলিক উপাদান হিসেবে কাজ করে। এখন অনেকেই চিন্তা করে থাকতে পারেন যে, কোনো কারণে যদি ডিম কম হয়ে যায় বা বেশি হয়ে যায় তাহলে কুকিজ কি পরিমাণ পরিবর্তন লক্ষ করা যায়। আপনারা হয়তো জেনে থাকবেন ডিম শুধুমাত্র কুকিজ নয়, কেক বেক করার সময়ও ডিম ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তাই কোনো কারণে যদি আপনার কুকিজ এ ডিমের পরিমাণ বেশি হয়ে যায় তাহলে অতিরিক্ত ডিমের কারণে আপনার কুকিজ গুলো অনেকটা কেকের মতো টেক্সচার পেয়ে যাবে। আর যদি কোনো কারণে ডিম কম হয়ে যায় তাহলে আপনার কুকিজগুলো একদম শুষ্ক ধরনের এবং শক্ত ধরনের হয়ে যেতে পারে।

ময়দা 

বেক করার সময় সাধারণত আমরা সচরাচর যে ময়দা ব্যবহার করে থাকি সেটা ব্যবহার করলেই হয়ে যায় যেটাকে অল পারপাস ফ্লাওয়ার নামে অভিহিত করা হয়। খেয়াল রাখতে হবে কুকিস বেক করার সময় আপনি যে রেসিপি ফলো করছেন সে অনুযায়ী যতটা সম্ভব সূক্ষ্মভাবে যাতে আপনি ময়দার পরিমাপ করে নিতে পারেন। যদি আপনার ময়দা একটু পুরনো হয়ে থাকে তাহলে ব্যবহারের পূর্বে ময়দাটা ছেঁকে নিয়ে মিহি করে নিলে সুবিধা হবে।

মাখন বা তেল 

বেকিং করার ক্ষেত্রে অনেক সময় একটি প্রধান উপাদান হিসেবে মাখন ব্যবহার করা হয়ে থাকে কিন্তু কোনো কোনো ক্ষেত্রে মাখন এর পরিবর্তে তেল ব্যবহার করা যায়। কিন্তু কুকিজ তৈরি করার সময় ব্যাপারটি খেয়াল রাখতে হবে যে, মাখনে ফ্যাট ছাড়াও বিভিন্ন মিল্ক সলিডস বিদ্যমান থাকে যেগুলো আপনার কুকিজের টেক্সচারে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। কিন্তু অন্যদিকে শুধুমাত্র তেল ব্যবহার করলে মিল্ক সলিডস গুলোর অনুপস্থিতির কারণে আপনার কুকিজের টেক্সচার অতটা ভালো হবে না।  

উপরোল্লিখিত টিপসগুলো অনুসরণ করলে আপনি সহজেই নিজ হাতে বেশ ভালো মানসম্মত এবং টেক্সচার বজায় রেখে কুকিজ বেক করতে পারবেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *